Friday , October 7 2022
Home / Motor Bike / Lo Res Car: এটা গাড়ি! দেখে বোঝার উপায় নেই, কী ভাবে বানানো হল এই গাড়ি?

Lo Res Car: এটা গাড়ি! দেখে বোঝার উপায় নেই, কী ভাবে বানানো হল এই গাড়ি?

এটা যে গাড়ি, দেখে বোঝার উপায় নেই। জানলা, স্টিয়ারিং, চাকা— একটি গাড়িকে চিনতে যা যা লাগে, তার কোনওটাই চোখে পড়ে না বাইরে থেকে। কিন্তু গাড়ির মতোই গড়িয়ে চলতে পারে রাস্তা দিয়ে! গাড়ির মতোই স্টিয়ারিং ঘুরিয়ে দিক বদলাতে পারে। আবার আগু-পিছুও করতে পারে। প্রয়োজনে গতিও বাড়াতে-কমাতে পারে।

উজ্জ্বল কালো রঙের, আকারে সাধারণ গাড়ির চেয়ে অনেক ছোট এই বস্তুটি দেখতে একেবারেই গাড়ির মতো নয়। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে এটি একটি গাড়িই।

ডাচ জুতো প্রস্তুতকারক সংস্থা ইউনাইটেড ন্যুড এই মডেলটি বানিয়েছিল। কালো রঙের এই গাড়িটি বাজারে বিক্রির জন্য তারা আনেনি। মূলত একটি প্রদর্শনীর জন্য তারা এই মডেল বানিয়েছিল ২০১৬ সালে।

গাড়িটির নাম দেওয়া হয়েছিল লো রেজ অর্থাৎ লো রেজলিউশন। রেম ডি কুলহ্যাস নামক এক ডিজাইনার গাড়িটির নকশা বানিয়েছিলেন।

গাড়িটির পুরোটাই স্টিলের কাঠামো। উপরের অংশটিতে স্টিলের কাঠামোর উপর স্বচ্ছ পলিকার্বনেট দেওয়া।

উপরের অংশে স্বচ্ছ পলিকার্বনেট দিয়ে তৈরি হলেও কিন্তু গাড়ির বাইরে থেকে ভিতর দেখা যায় না। কিন্তু ভিতর থেকে বাইরে সব স্পষ্ট দেখা যায়।

গাড়িটির চারপাশ ঘুরে দেখলে মনে একটা প্রশ্ন আসতে পারে। ভিতরে ঢুকবেন কী ভাবে? কারণ, গাড়িটিতে কোনও জানলা-দরজা নেই। গাড়ির উপরের অংশটি আসলে ওঠানো-নামানো যায়। চালক এবং আরোহী ভিতরের আসনে বসে পড়ার পর উপরের অংশটি আবার নীচে নামিয়ে আনতে হয়।

মাত্র দু’জনই এই গাড়িটিতে বসতে পারেন। জায়গা কম থাকার জন্য আসনসজ্জা পাশাপাশি না করে আগু-পিছু করা হয়েছে। সামনের আসনে স্টিলের স্টিয়ারিং ধরে বসবেন চালক। তাঁর ঠিক পিছনের আসনে বসবেন আরোহী।

এই গাড়ি চলে বিদ্যুতে। গতিও অন্যান্য গাড়ির থেকে তুলনামূলক ভাবে অনেক কম। ঘণ্টায় সর্বাধিক ৫০ কিলোমিটার।

চাকাগুলি খুবই ছোট। বাইরে থেকে প্রায় দেখাই যায় না। যে কারণে একমাত্র মসৃণ রাস্তায় এই গাড়ি চালানো যাবে।

Check Also

শীতের সকালে বাইক স্টার্ট না নিলে কি করবেন

শীতের সকালে বাইক স্টার্ট না নিলে কি করবেন

শীতের সকালে বাইক স্টার্ট না নিলে কি করবেন শীতকালে ঠোঁট ফাটা, ত্বক শুষ্ক হয়ে যাওয়ার …